Breaking News

পাক তারকা শোয়েব মালিককে নিয়ে গোপন তথ্য ফাঁস করলেন আফ্রিদি

২০০৫ সালে ফয়সালাবাদ টেস্টের ঘটনা। সেই টেস্টে পিচ টেম্পারিং করে একটি টেস্ট ও দুটি ওয়ানডে ম্যাচ থেকে নিষিদ্ধ হয়েছিলেন শহীদ আফ্রিদি। আফ্রিদির বিতর্কিত ক্যারিয়ারে এটি ছিল আরেকটি কালিমা। এমন কান্ডের পর আফ্রিদিকে চারেদিকে কঠিন আলোচনা সমালোচনাও হয়েছিল।

 

 

সেই ঘটনা নিয়ে ১৭ বছর পর মুখ খুলেছেন আফ্রিদি। তিনি জানিয়েছেন এই ঘটনায় তার সঙ্গে জড়িত ছিলেন শোয়েব মালিকও। পাকিস্তানের সাবেক এই অধিনায়ক জানিয়েছেন সেদিন গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণের সুযোগ নিয়েছিলেন তিনি। এর আগে মালিকের সঙ্গে এ নিয়ে কথাও বলেছিলেন তিনি।

 

 

এ প্রসঙ্গে আফ্রিদি বলেন, ‘এটা একটা ভালো সিরিজ ছিল। সেই টেস্ট ছিল ফয়সলাবাদে। বিশ্বাস করুন, এটি এমন একটি টেস্ট ছিল যেখানে বল টার্ন করছিল না। এমনকি সুইং সিম কিচ্ছুই পাচ্ছিল না। ম্যাচটি বেশ বিরক্তিকর হয়ে উঠছিল। আমি আমার পূর্ণ শক্তি প্রয়োগ করছিলাম এবং কিছুই হচ্ছিল না। এরপর হঠাৎ একটি গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে সবাই বিভ্রান্ত হয়ে পড়ে। আমি মালিককে বলেছিলাম, আমি এই পিচে খুব খারাপভাবে একটি প্যাচ তৈরি করতে চাই। আমি চাই বল টার্ন করুক!’

 

 

এরপর মালিক তাকে পিচ টেম্পারিং করার পরামর্শ দিয়েছিলেন। এ প্রসঙ্গে আফ্রিদি বলেন, ‘শোয়েব মালিক জবাব দিয়েছিল করে দাও। কেউ দেখছে না। তাই আমিও কাজটা করে দিই! তারপর যা ঘটল, তা ইতিহাস। এখন যখন আমি পিছনে তাকাই, নিঃসন্দেহে এটি একটি ভুল ছিল।’

 

 

সেই ম্যাচে ইংল্যান্ডের ইনিংসের ২৯তম ওভারের সময় একটি স্ট্যান্ডের কাছে শক্তিশালী গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়। তখন ইংল্যান্ড ব্যাট করছিল ২ উইকেটে ৯২ রান নিয়ে। এরপর মিনিট দশেকের জন্য ম্যাচ বন্ধ হয়ে যায়। খেলোয়াড়রা মাঠ না ছাড়লেও পিচ ঘিরে রেখেছিলেন নিরাপত্তা কর্মীরা।

 

 

এরপর হুড়োহুড়ির মধ্যে সুযোগ কাজে লাগিয়ে জুতার স্পাইক দিয়ে পিচ নষ্ট করেন আফ্রিদি। শেষ পর্যন্ত সেই ম্যাচটি ড্র হয়েছিল। সিরিজের শেষ ম্যাচ জিতে পাকিস্তান ২-০ ব্যবধানে সিরিজ জিতে নিয়েছিল।

About admin

Check Also

অসম্ভব কে সম্ভব করে দেখালো পাকিস্তান, অবাক ক্রিকেট বিশ্ব

জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৮ বলে ৩৪ রান। মোহাম্মদ হুসনাইনের করা ১৭তম ওভারে লিয়াম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.