Breaking News

নয় মাসের অন্তঃসত্ত্বা প্রেমিকার পেটে লাথি মারলেন জার্মান ফুটবলার

জার্মান ডিফেন্ডার নিকো শুলজের বিপক্ষে ‘গুরুতর’ অভিযোগ উঠেছে। গর্ভপাতের জন্য অন্তঃসত্ত্বা সঙ্গীর পেটে লাথি মারার অভিযোগে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডে খেলা এই ফুটবলারের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে জার্মান কর্তৃপক্ষ।

 

 

সম্রতি জার্মান সংবাদমাধ্যমে শুলজ এবং তার সাবেক প্রেমিকার বেশ কিছু খুদে বার্তা ফাঁস হয়েছে। যেখানে একটি খুদে বার্তায় তার প্রেমিকা লিখেছেন, ‘আমার এপার্টমেন্টে তুমি আমাকে আঘাত করেছ।’

 

 

জার্মান পত্রিকা বিল্ড জানিয়েছে, ২০২০ সালে সন্তান জন্ম দেওয়ার সপ্তাহদুয়েক আগে প্রেমিকার উপর চড়াও হন শুলজ। তার সাবেক প্রেমিকার আইনজীবী বলেন, ‘গর্ভপাতের জন্য সে(শুলজ) তার প্রেমিকার পেটে লাথি মারে।’

 

 

ডর্টমুন্ড স্টেট প্রসিকিউটরের অফিস শুলজের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ তদন্ত শুরু করেছে। তদন্তের অংশ হিসেবে তথ্য-প্রমাণ সংগ্রহের জন্য জার্মান ডিফেন্ডারের বাড়িতে তল্লাশিও চালিয়েছে পুলিশ।

 

 

এদিকে শুলজের ক্লাব ডর্টমুন্ড রোববার বিকেলে এক বিবৃতিতে শুলজের বিরুদ্ধে ‘অত্যন্ত স্পর্শকাতর’ অভিযোগের বিষয়টি তাদের নজরে এসেছে বলে জানিয়েছে। তবে বিষয়টিকে ঘিরে এখনো ‘অনেক অস্পষ্টতা’ থাকায় এখনই তার বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নিতে চায় না ক্লাবটি। অবশ্য অভিযোগের বিষয়ে আরও তথ্য সামনে আসলে তারা পদক্ষেপ নেওয়ার নিশ্চয়তা দিয়েছে।

 

 

জার্মান পত্রিকা বিল্ড জানিয়েছে, অপরাধ প্রমাণিত হলে জার্মান আইন অনুযায়ী শুলজের ১০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে।

এদিকে নতুন মৌসুমের প্রথম ম্যাচে বায়ার লেভারকুজেনের বিপক্ষে স্কোয়াডে ছিলেন না শুলজ। ডর্টমুন্ডের নতুন কোচ এদিন তেরজিচ অবশ্য আগেই জানিয়েছিলেন, নতুন মৌসুমে তার পরিকল্পনায় নেই এই জার্মান ডিফেন্ডার।

About admin

Check Also

অসম্ভব কে সম্ভব করে দেখালো পাকিস্তান, অবাক ক্রিকেট বিশ্ব

জয়ের জন্য ইংল্যান্ডের প্রয়োজন ছিল ১৮ বলে ৩৪ রান। মোহাম্মদ হুসনাইনের করা ১৭তম ওভারে লিয়াম …

Leave a Reply

Your email address will not be published.